ঘুষের প্রস্তাব পেয়েছিলেন ট্রাম্পের প্রাক্তন উপদেষ্টা

ঘুষের প্রস্তাব পেয়েছিলেন ট্রাম্পের প্রাক্তন উপদেষ্টা

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রাক্তন নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিনকে ১ কোটি ৫০ লাখ ডলার ঘুষের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। যুক্তরাষ্ট্রে আশ্রয় নেওয়া তুর্কি ধর্মগুরু ফেতুল্লাহ গুলেনকে ফেরত পাঠানোর জন্য তাকে এ ঘুষের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল।

শুক্রবার এনবিসি নিউজ ও ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। এতে বলা হয়েছে ফ্লিন ও তার ছেলের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করেছিলেন তুর্কি প্রতিনিধি দল।

রাশিয়ার ওপর থেকে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া নিয়ে এক রুশ কূটনীতিকের সঙ্গে আলোচনার অভিযোগ ওঠার পর ফেব্রুয়ারিতে ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন পদত্যাগ করেন।

গত মার্চে মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিআইয়ের তৎকালীন পরিচালক জেমস উলসে প্রথম ফেতুল্লাহ গুলেনকে তুরস্কে ফিরিয়ে নিতে এই ঘুষের প্রস্তাবটি সম্পর্কে জানতে পারেন। তুরস্ক সরকারের অভিযোগ, গত বছর প্রেসিডেন্ট এরদোয়ানকে ক্ষমতাচ্যুত করতে যে সেনা অভ্যুত্থানের চেষ্টা করা হয়েছিল তাতে ফেতুল্লাহ গুলেনের ইন্ধন ছিল। তুরস্ক গুলেনকে ফেরত পাঠাতে এর আগে কয়েকবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, গত বছরের ডিসেম্বরে নিউ ইয়র্কে তুর্কি কর্মকর্তাদের সঙ্গে মাইকেল ফ্লিনের যে বৈঠক হয়েছিল সে বিষয়টির ওপর বিশেষ নজর দিচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার প্রভাব খাটানোর ঘটনার তদন্তকারী কর্মকর্তা রবার্ট মুয়েলার। এফবিআইয়ের এই প্রাক্তন কর্মকর্তা ফ্লিনের বিষয়েও তদন্ত করছেন। ডিসেম্বরে গুলেনকে একটি ব্যক্তিগত বিমানে করে তুরস্কের ইমরালি দ্বীপের কারাগারে পাঠানোর বিষয়েও আলোচনা করেছিলেন ফ্লিন।গত বছরের সেপ্টেম্বরেও তুর্কি প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন ফ্লিন।

এনবিসি নিউজ চ্যানেল জানিয়েছে, হোয়াইট হাউজের নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করা কালে ফ্লিন গুলেনকে তুরস্কে ফেরত পাঠাতে চাপ প্রয়োগ করেছিলেন কিনা সে বিষয়েও তদন্ত করছে এফবিআইয়ের তদন্ত দল।

মন্তব্য নেই

উত্তর