চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি ॥ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত সর্দার মিরাজুল ইসলাম মিরা (৪৭) নিহত হয়েছে। বুধবার রাত ২টার দিকে উপজেলার গোবিন্দহুদা গ্রামের ঈদগাহ মাঠে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মিরাজুল ইসলাম ওরফে মিরা (৫০) উপজেলার হাতিভাঙ্গা গ্রামের মৃত হাফেজ উদ্দিনের ছেলে।
পুলিশের দাবি, বুধবার বিকেলে দুই রাউন্ড গুলিসহ গ্রেফতার করা হয় মিরাকে। গ্রেফতারের পর তাকে সাথে নিয়ে রাতেই অস্ত্র উদ্ধারে যায় পুলিশ। এসময় গোবিন্দহুদা গ্রামের ঈদগাহ মাঠ এলাকায় পৌঁছালে মিরার সহযোগীরা তাকে ছিনিয়ে নিতে পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি ও বোমা নিক্ষেপ করে। এসময় পুলিশও পাল্টাগুলি চালায়। একপর্যায়ে পুলিশের গুলি বর্ষণের মুখে পিছু হটে ডাকাত সদস্যরা। এসময় পালাতে গিয়ে ডাকাত সর্দার মিরাকে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। পরে সেখান থেকে একটি শাটারগান, ২ রাউন্ড গুলি, ২টি ককটেল ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। মিরাজুলকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নেওয়্ াহলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক আউলিয়ার রহমান মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান । চুয়াডাঙ্গা সহকারী পুলিশ সুপার আহসান হাবীব জানায়, মিরার বিরুদ্ধে ডাকাতি ও অস্ত্র মামলাসহ ৯টি মামলা রয়েছে। সে জামু আকরাম বাহিনীর সক্রিয় সদস্য ছিলো।