নকশী কাঁথার সূত্র ধরে চাকুরী দিলেন প্রধানমন্ত্রী

নকশী কাঁথার সূত্র ধরে চাকুরী দিলেন প্রধানমন্ত্রী

হুমায়ুন কবির রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) সংবাদদাতা ॥ একটি চমৎকার নকশী কাঁথা উপহার পাওয়ার প্রেক্ষিতে এক শিক্ষিত বেকার যুবককে ব্যাংকে চাকুরী দিলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। গত ১৫ অক্টোবর রবিবার গণভবনে ঠাকুরগাঁওয়ের জাবরহাটের আমিরুল ইসলামকে প্রধানমন্ত্রী সরাসরি এ নিয়োগপত্র প্রদান করেন। এ সময় ঠাকুরগাঁও পঞ্চগড়-৩০১ সংরক্ষিত আসনের এমপি সেলিনা জাহান লিটাসহ আমিরুলের আত্মীয়রা উপস্থিত ছিলেন।
জানা গেছে ১৯৮৭ সালে উত্তরাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যা পরিদর্শনে ঠাকুরগাঁওয়ের জাবরহাট করনাইট এলাকায় যান। তখনকার আওয়ামীলীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে আয়োজিত এক অনাড়ম্বর মঞ্চের টেবিলে ঢাকা দেয়া চমৎকার নকশী কাঁথাটি দেখে মেখ হাসিনা মুগ্ধ হন। তিনি ঐ নকশী কাঁথার কারিগর কে তা জানতে ও তাকে দেখতে চান। নকশীকাঁথার প্রস্তুতকারি স্থানীয় চেনবানুকে সঞ্চে আনাহলে শেখ হাসিনা তার সাথে কুশল বিনিময় করেন ও কাঁথাটির খুব প্রশংসা করেন। চেনবানু আনন্দ আবেগে তাৎক্ষণিকভাবে নকশীকাঁথাটি শেখ হাসিনাকে উপহার দিয়ে দেন। শেখ হাসিনা সানন্দে সেটি গ্রহণ করেন।
এরপর প্রায় তিরিশ বছর পরে ঐ নকশী কাঁথার সূত্র ধরে চেনবানুর নাতি এম এ পাশ বেকার আমিরুল ইসলাম তার চাকুরীর জন্য সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে যোগাযোগ করলে প্রধানমন্ত্রী তাকে এ ব্যাপারে সেলিনা জাহান লিটা এমপির সঙ্গে যোগাযোগ করে তাকে নিয়ে তাঁর (প্রধানমন্ত্রীর) কাছে আসতে বলেন। এমপি লিটা এ ব্যাপারে দ্রুত সহযোগিতা করে আমিরুল চেনাবানু ও অন্যান্যদের নিয়ে গত ১৫ অক্টোবর গণ-ভবনে প্রধানমন্ত্রীর কাছে যান। প্রধানমন্ত্রীর ঐ দিনেই দরখাস্ত অনুযায়ী আমিরুলকে ইউনিয়ন ব্যাংকে জুনিয়র অফিসার পদে নিয়োগপত্র দেন। প্রধান মন্ত্রী এই সাথে তাদেরকে কিছু নগদ টাকাও দেন।

মন্তব্য নেই

উত্তর