বৃহত্তর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি ফখরুলের

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি না হলে বৃহত্তর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শনিবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘গণতন্ত্র রক্ষা করতে, মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনতে, সংবিধানকে সমুন্নত রাখতে এবং বেগম খালেদা জিয়াসহ অন্য রাজনৈতিক নেতাদের মুক্ত করার জন্য ঐক্যফ্রন্টের সব রাজনৈতিক দল নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘দুঃখজনকভাবে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর এখনও বেআইনিভাবে গায়েবি মামলায় নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে প্রতিদিন। এমনকি প্রার্থী হয়েছেন যারা আগে এমপি ছিলেন তাদেরকেও গ্রেফতার করা হচ্ছে। এ অবস্থা চলতে থাকলে নির্বাচনের যে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড কোনো মতেই হবে না। এ জন্য আমরা দাবি করেছি যে, অবিলম্বে এ গ্রেফতার বন্ধ করা হোক। যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের মুক্তি দেয়া হোক, মামলা প্রত্যাহার করা হোক। তা না হলে এ নির্বাচন জনগণের কাছে কখনোই গ্রহণযোগ্য হবে না। আমরা বারবার বলেছি, প্রধানমন্ত্রীকেও বলেছি, উনি যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, নির্বাচন কমিশনকেও বলেছি অথচ গ্রেফতার বন্ধ হচ্ছে না।’

ফখরুল বলেন, ‘আমরা আশা করব, ড. কামাল হোসেনের এ সংবাদ সম্মেলনের পর গ্রেফতার বন্ধ হবে। অন্যথায় নির্বাচনের পরিবেশ সুষ্ঠু করার জন্য এবং নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য করতে আমরা বৃহত্তর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হব।’

সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেনের পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহামুদুর রহমান মান্না। কামাল হোসেন সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। এ ছাড়াও সেখানে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, মোস্তফা মোহসীন মন্টু, সুব্রত চৌধুরী, ড. রেজা কিবরিয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।