পাঠানো বার্তা মোছা যাবে ফেসবুকেও

যান্ত্রিক জীবনে কারও সঙ্গে একটু সময় হয়ে উঠে না কথা বলার। তাই তথ্য-প্রযুক্তির এই যুগে ফেসবুকই আমাদের একমাত্র ভরসা, অন্তত সবাইকে হাই-হ্যালো জানানো যায়। কিন্তু ফেসবুকে তথ্য আদান-প্রদান করতে গিয়ে অনেক সময় অন্য কারও কাছে চলে যায় বার্তা। বিড়ম্বনা এড়াতে বলতে হয়, সরি।

হরহামেশাই এই ধরনের সমস্যায় পড়তে হয়। আর এই সমস্যা থেকে বাঁচতে ফেসবুকে যোগ হতে চলছে মেসেজ ডিলিট করার ফিচার। সম্প্রতি এমনটাই জানিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

জানানো হয়েছে, ফেসবুক মেসেঞ্জার অ্যাপে আসতে চলেছে এক নয়া ফিচার, যার নাম ‘আনসেন্ড’। এর মাধ্যমে ‘চ্যাট থ্রেড’ থেকে পাঠানো কোনো মেসেজ মুছে ফেলতে পারবে বার্তা প্রেরক। মেসেজ পাঠানোর ১০ মিনিটের মধ্যে এই সুযোগ ব্যবহার করা যাবে। পারসোনাল এবং গ্রুপ চ্যাট উভয়ক্ষেত্রেই এই ফিচারের সুবিধা পাবেন ব্যবহারকারীরা।

গত বছর মার্ক জুকেরবার্গের কাছ থেকে ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মেসেজ পাঠানো হয় এবং পরে তা ডিলিটও করে দেওয়া হয়। পরে বেশ কয়েকজন ফেসবুক ব্যবহারকারী বিষয়টি জনসমক্ষে এনেছিলেন। যদিও তখন কেবল ফেসবুক কর্তৃপক্ষই এই ফিচারটি ব্যবহার করতে পারতো। আর এখন ব্যবহারকারীদের কথা মাথাই রেখে এই ফিচার কার্যকর করতে পদক্ষেপ নিয়েছে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

যেভাবে ব্যবহার করা যাবে এই ফিচার

আনসেন্ড’ ফিচারে দুটি অপশন পাবেন ব্যবহারকারীরা। প্রথমটি, ‘রিমুভ ফর ইউ’ এবং দ্বিতীয়টি  ‘রিমুভ ফর এভরিওয়ান’। ডিলিট করতে চাওয়া মেসেজের ওপর কিছুক্ষণ স্পর্শ করে থাকলে যে দুটি অপশন মিলবে, তার প্রথম অপশন নির্বাচন করলে প্রেরকের ‘চ্যাট থ্রেড’ থেকে মেসেজ মুছে যাবে। সে ক্ষেত্রে শুধু প্রেরকই মেসেজ দেখতে পারবেন না, কিন্তু বাকিরা সেই মেসেজ পড়তে পারবেন। আর ‘রিমুভ ফর এভরিওয়ান’-এর ক্ষেত্রে যাকে বা গ্রুপে যাদের মেসেজ পাঠানো হয়েছিল, তারা আর কেউই মেসেজটি দেখতে পারবেন না। পরিবর্তে চ্যাট থ্রেডে লেখা থাকবে ‘মেসেজ ডিলিটেড’। মেসেঞ্জার অ্যাপের নতুন ভার্সনে এই ফিচার সংযোজিত হবে। অ্যান্ড্রয়েডের এবং আইএসও ইউজার উভয়ই এই ফিচারের সুবিধা পাবেন। এদিকে, বেশ কিছুদিন ধরে হোয়াটস অ্যাপে মিলেছে বার্তা মুছে ফেলার এই সমাধান।