ভাইরাস জ্বরে সতর্কতা

শীতের শেষ দিকে আবহাওয়া পরিবর্তনের ভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে। আবহাওয়ার এই পরিবর্তনে হঠাৎ করে অনেকেই সর্দি-জ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন।

যখনই ঋতু পরিবর্তন হয়, গরম থেকে ঠাণ্ডার দিকে আসা শুরু হয়, আবার ঠাণ্ডা থেকে গরমের দিকে যেতে শুরু করে, তখনই আমরা বলি ফ্লু। এর প্রকোপ অনেক বেশি। এ সময় অনেক ভাইরাস জ্বর হয়।

খুব প্রচলিত হচ্ছে, আমাদের নাক-মুখ দিয়ে ভাইরাসগুলো প্রবেশ করবে। এর পর তীব্র জ্বর হবে, গায়ে ব্যথা হবে। অনেক বেশি সর্দি থাকবে। গলায় ব্যথা থাকবে, ঢোক গিলতে ব্যথা হবে অথবা কাশি হবে। কাশি সাধারণত শুকনো শুকনো হয়। শেষের দিকে হয়তো কাশির সঙ্গে কফ বের হতে পারে।

শিশু এবং বয়স্কদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকায় সাধারণত তারাই বেশি ভাইরাস জ্বরে আক্রান্ত হয়। তিন দিনের মধ্যে এই জ্বর না কমলে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ সেবন করুন, ভালো থাকুন।