ফাতেমার বাবাকে কয়েকদিন আগেও টাকা দিয়েছি : ফখরুল

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে স্বেচ্ছায় কারাবন্দি তার গৃহপরিচারিকা ফাতেমার বেতন না দেওয়ার বিষয়টি সম্পূর্ণ ভুয়া এবং বানোয়াট বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

ফাতেমা দীর্ঘদিন বেতন না পাওয়ায় মানবেতর জীবন-যাপন করছে তার পরিবার। গত ১৩ মাসে পরিবারের দেনা হয়েছে লাখ খানেক টাকা বলে জানিয়েছেন তার বাবা।

এই বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ফাতেমার বাবা কয়েকদিন আগেও আমার কাছে এসেছিল, আমি তাকে টাকা দিয়েছি।

এছাড়া চেয়ারপারসনের বাসভবনে দায়িত্বপ্রাপ্তদের প্রতিমাসে বেতন পরিশোধ করে দেওয়া হয় এবং খোঁজ-খবর নেওয়া হয় বলেও জানিয়েছেন ফখরুল।

উল্লেখ্য, ফাতেমা কবে মুক্তি পাবে জানতে চেয়ে একটি বেসরকারি টেলিভিশনে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তার বাবা রফিকুল ইসলাম বলেন, খালেদা জিয়া জীবনেও ফাতেমাকে কিছু দেবে না, এমনকি কিছু দরকার কি না জিজ্ঞেসও করবে না। অন্য কেউ দিলে হয়তো পাবে। খালেদা জিয়ার মুখ দিয়ে বের হবে না যে, এই জিনিসটা তোকে দিলাম।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমান বা তার পরিবারের কেউ ফাতেমার পরিবারের খবর নেয়নি। টাকার অভাবে ফাতেমার দুই ছেলে এখন স্কুল ছেড়ে মাদ্রাসায় যাওয়ার অবস্থায়। বারবার চেষ্টা করেও জিয়া পরিবারের কারো সাথে যোগাযোগ করতে পারছেন না বলে অভিযোগ করেন রফিকুল ইসলাম।

জানা যায়, দশবছর আগে ফাতেমার স্বামী মারা যাওয়ার পর, সংসারের হাল ধরতে এলাকার এক পরিচিত ব্যক্তির মাধ্যমে সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বাসভবনে গৃহপরিচারিকার কাজ পান ফাতেমা।

তার বেতন প্রথমে ২ হাজার টাকা থাকলেও বকশিস ছিল মোটা। পরবর্তীতে বেতন ৫ হাজার করা হয় এবং বেতনের টাকা প্রতিমাসে মানি অর্ডারে যেত ভোলার গ্রামের বাড়ির ঠিকানায়।