ফিলিস্তিনিদের মসজিদকে নাইট ক্লাব বানাল ইসরাইল

ফিলিস্তিনিদের ঐতিহাসিক একটি মসজিদকে নাইট ক্লাব ও বার বানিয়েছে ইসরাইল। সেখানে এখন পার্টির আয়োজন করে মদ্যপান করা হয়। মাঝে মাঝে বিয়ের অনুষ্ঠানও আয়োজন করা হয়। রাতে গানের তালে নাচতে দেখা যায় তরুণ-তরুণী থেকে সব বয়সী মানুষকে।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ পর্যবেক্ষণ সংস্থা মিডলইস্ট মনিটর জানায়, উত্তর ফিলিস্তিনে অবস্থিত ত্রয়োদশ শতাব্দীর ওই মসজিদটির নাম আল-আহরাম। বর্তমানে ইসরাইলের সাফাদ নগর কর্তৃপক্ষ এর নাম পরিবর্তন করে খান আল-আহরাম রেখেছে।

১৯৪৮ সালে মসজিদটি দখলে নেয় ইসরাইলি বাহিনী। প্রথমে এটিকে ইহুদিদের স্কুল পরে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর নির্বাচনী প্রচারণা ক্যাম্প, এরপর জামাকাপড়ের গুদাম এবং সর্বশেষ এটিকে নাইট ক্লাবে রূপান্তর করা হয়।

সাফেদ ও তিবিরিয়াসের ইসলামি বৃত্তিদানের সম্পাদক খাইর তাবারী বলেন, ইসরাইলের এমন কাজ নিয়ে তিনি নেজারত শাখার একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

তিনি বলেন, মসজিদের মালিকানার সব কাগজপত্র উপস্থাপন করা হয়েছে। এখন মসজিদ রক্ষার রুলের জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে।

১৯৪৮ সালে ১২ হাজার ফিলিস্তিনিকে তাদের নিরাপদ বসতবাড়ি থেকে উচ্ছেদ করে ইসরাইলি বাহিনী।

তাবারী বলেন, মসজিদটি মুক্ত হলে সেখানে মুসলমানরা ইবাদত করতে পারবে।