ক্যানসার গবেষণায় নোবিপ্রবি শিক্ষকের পিএচডি ডিগ্রি অর্জন

ক্যানসার গবেষণায় পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেছেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) ফার্মেসি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. শহীদ সারওয়ার। হংকং ব্যাপটিস্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি সম্পন্ন করেন তিনি। বিখ্যাত ওষুধ প্রযুক্তিবিদ অধ্যাপক ড. হংজি জায়াংয়ের অধীনে তিনি তার পিএইচডি গবেষণা সম্পন্ন করেন।

কলোরেক্টাল ক্যানসার নিরাময়ের জন্য নতুন ওষুধ আবিষ্কার নিয়ে তিনি তার পিএইচডি ডিগ্রির গবেষণা করেছেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের ১ম ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন এবং নোবিপ্রবি গ্রাজুয়েটদের মধ্যে তিনিই প্রথম পিএইচডি ডিগ্রি সম্পন্ন করলেন।

ড. সারওয়ার ওষধি গাছ থেকে উৎপাদন হওয়া ফ্লেক্সিকাউলিন-এ নামক একটি ওষুধের গাঠনিক পরিবর্তন করে অক্সফ্লেক্সিকাউলিন-এ নামক নতুন একটি ক্যানসারের ওষুধ আবিষ্কার করেন যা ক্যানসার সেল লাইন ও ইঁদুরের ওপর কার্যকারিতা প্রদর্শন করে। পরবর্তীতে তিনি ওই ওষুধের মলিকুলার মেকানিজম নিয়ে কাজ করেন।

হংকং পিএইচডি ফেলোশিপ প্রোগ্রামের অধীনে গবেষণা চালিয়ে যাওয়ার জন্য তিনি হংকং সরকার থেকে প্রতি বছর বৃত্তি হিসেবে ৩৮৬০০ ইউএস ডলার এবং কনফারেন্স ও গবেষণার জন্য যাতায়াত বাবদ ১৬০০ ইউএস ডলার করে পেয়েছেন।

পিএইচডি গবেষণা থেকে তিনি তিনটি গবেষণাপত্র বিভিন্ন আন্তর্জাতিক জার্নালে প্রকাশ করেন এবং গবেষণালব্ধ ফল আমেরিকা, ইউকে, ডেনমার্ক, হংকং ও জাপানের বিভিন্ন কনফারেন্সে উপস্থাপন করেন।

উল্লেখ্য, ড. সারওয়ার নোবিপ্রবি থেকে ২০০৯ সালে বি. ফার্ম এবং ২০১১ সালে এম. ফার্ম ডিগ্রি অর্জন করেন। নোবিপ্রবি ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামের অধীনে গর্ভবতী মহিলাদের শরীরে বিভিন্ন পুষ্টিগত উপাদানের পরিমাণ নিয়ে তিনি তার মাস্টার্স ডিগ্রির গবেষণা সম্পন্ন করেন।