স্কুল মাঠে নির্মাণ সামগ্রী, খেলাধুলা ও শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত

মাঠজুড়ে বালু আর পাথর। সারি সারি রাখা হয়েছে সড়ক নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত গাড়ি। এভাবে বছরের পর বছর ধরে স্তূপ রাখায় রাজাপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ব্যাহত হচ্ছে। একইভাবে রাজাপুর ইসলামিয়া সিনিয়র (আলিম) মাদ্রাসার পাঠদানে বিঘ্ন ঘটছে। এ নিয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক, এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে। উপজেলা পরিষদের সমন্বয় সভায় উত্থাপন হলেও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নির্বিকার।

১২০ শতক জায়গার ওপর রাজাপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের মাঠ। এ কলেজে প্রায় ১ হাজার ৩শ শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত রয়েছে। গত কয়েকবছর ধরে এখানে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান নির্মাণ সামগ্রী রাখে। এতে করে গত কয়েক বছর ধরে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা বন্ধ রয়েছে। একইভাবে মাদ্রাসায়ও নিয়মিত পাঠদানে ব্যাঘাত ঘটছে। শ্রেণিকক্ষে ধুলোবালি ও মাঠে নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত গাড়ির আসা-যাওয়ায় শব্দ দূষণে মাদ্রাসায় অধ্যয়নরত প্রায় ৮শ শিক্ষার্থী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে।

স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানান, সরকারি দলের নাম ব্যবহার করে একটি প্রভাবশালী মহল মাঠটি দীর্ঘদিন ধরে দখল করায় খেলাধুলা বন্ধ রয়েছে।

মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মোহাম্মদ নুরুন নবী জানান, বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট মহলে জানানো হয়েছে।

মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি ও স্থানীয় রাজাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আ.ন.ম কাশেদুল হক বাবর জানান, বিষয়টি তিনি উপজেলা পরিষদের সমন্বয় সভায় উত্থাপন করেছেন।

রাজাপুর স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মোমিনুল হক খেলাধুলা বন্ধ থাকার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমরা চাই মাঠটি পরিষ্কার হয়ে যাক। ছেলেমেয়েরা খেলাধুলা করুক।

জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম ভূঞা বলেছেন, বিষয়টি তিনি অবগত হয়েছেন। অতিদ্রুত সময়ে মাঠ থেকে নির্মাণ সামগ্রী অপসারণ করা হবে।