রংপুর বিভাগসারাদেশ

ঘোড়াঘাট(দিনাজপুর) থেকে মাহতাব

কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামে দ্বিতীয় স্ত্রীর চায়ের দোকানের টেবিলের ওপর থেকে স্বামীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। রোববার (৩১ অক্টোবর) সকালে নাগেশ্বরী পৌর এলাকার পয়রাডাঙ্গা দাদামোড় থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, দাদামোড়ে আলীর চায়ের দোকান দেখাশোনা করেন তার দ্বিতীয় স্ত্রী ফিরোজা বেগম। আলী গ্রামে ঘুরে ভাংগারির ব্যবসা করতেন। স্থানীয় এক ছেলের সঙ্গে তার স্ত্রীর সখ্যতা থাকায় বিষয়টি নিয়ে পারিবারিক বিরোধ লেগেই থাকতো। শনিবার সন্ধ্যায় বাজারে চা খেয়েছেন তিনি। আজ সকালে তার মরদেহ পাওয়া গেল।’
আলীর ভাইয়ের ছেলে মতিয়ার রহমান বাচ্চু বলেন, ‘রাত ১টার দিকে ওনার স্ত্রী ফোনে জানান টেবিল থেকে পড়ে রাত ১১টার দিকে জেঠা মারা গেছেন। অসুস্থ হলে তিনি আমাদের জানালেন না কেন? তার অভিযোগ জেঠির পরকীয়া নিয়ে তাদের সব সময় বিরোধ লেগেই থাকতো।’
ভাগনে রনি বলেন, ‘১১ টায় অসুস্থ হলে আমাদের ১১টায় ফোন দেয়ার কথা। কিন্তু দিলেন দেড়টার দিকে। এতে সন্দেহ হচ্ছে।’
পুলিশ জানায়, ‘চায়ের দোকানের টেবিলের ওপর মরদেহটি পাওয়া গেছে। তার গলা ও বুকে দাগ রয়েছে। টেবিল থেকে পরে গিয়েও হতে পারে।’
নাগেশ্বরী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) সুমন রেজা জানান, ‘কেউ অভিযোগ দিলে নেয়া হবে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।’
আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button