লিড নিউজ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অবৈধ অস্ত্রসহ গ্রেফতার ১৭২

কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ড ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ঘিরে বিশেষ অভিযান চালিয়ে ১৭২ জন দুষ্কৃতকারীকে গ্রেফতার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন)। সোমবার ১৪-আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক এসপি নাঈমুল হক গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।
তিনি জানান, মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডের পর থেকে ১৪ এপিবিএনের সদস্যরা বিশেষভাবে অভিযান চালিয়ে কথিত আরসা সদস্য, মাদক কারবারি, অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীসহ ১৭২ জনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে রয়েছে, কথিত আরসা নামধারী সন্ত্রাসী ১১৪ জন, মাদক ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট, চোরাচালানের সঙ্গে জড়িত, ওয়ারেন্টভুক্ত আসামিসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িত আরও ৫৮ জন। এই অভিযানে মহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ১০ জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। তার মধ্যে ৩ জন আসামি বিজ্ঞ আদালতে দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে বলেও জানান তিনি।
এসপি নাঈমুল হক আরও জানান, ওই অভিযানে ১১ হাজার ২৯৪ পিস ইয়াবা, ৪০ গ্রাম গাঁজা, ৪টি দেশীয় তৈরি আগ্নেয়াস্ত্র, ৪ রাউন্ড কার্তুজ, ২ রাউন্ড ৭.৬২ চায়না রাইফেলের গুলি, ১৪টি রামদা, ৫টি লোহার হাসুয়া, ১টি কিরিজ, ১২টি দা, ৩টি লম্বা আকৃতির ধামা, ১টি ছোরা ও একটি রড উদ্ধার করা হয়েছে। তা ছাড়া অবৈধভাবে মজুদ করে রাখা ৬০০ কেজি চাল ও ৮৯ লিটার তেল উদ্ধার করা হয়েছে।
তাদের বিরুদ্ধে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার সংক্রান্ত ৫টি মামলা, ডাকাতি প্রস্তুতির ৫টি মামলা, ১৩টি মাদক মামলাসহ ২৫টি মামলা রয়েছে। এদিন মোবাইল কোর্টে বিভিন্ন অপরাধে অপরাধীদের বিরুদ্ধে আরও ৫৯টি মামলা করা হয়। তাদের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয় এবং ৫৩ হাজার ২০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
এসপি নাইমুল বলেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পের দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে। আমরা চাই সাধারণ রোহিঙ্গারা ভালো থাকুক। আমাদের দেশে অন্য দেশের দুর্বৃত্তদের কোনো স্থান নেই। তথাকথিত দুর্বৃত্ত গ্রুপের নাম করে কাউকে সন্ত্রাসী কার্যকলাপ করতে দেওয়া হবে না।
আরো দেখুন

সম্পর্কিত প্রবন্ধ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button